বিশ্ব

সর্বশেষ বিশ্ব করোনা সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রের ৩৪ রাজ্যে করোনার হানা, মৃত বেড়ে ২১

করোনাভাইরাসের প্রকোপ থাকবে আরও তিন মাস ।করোনাভাইরাসে মৃত ৩ হাজার ৮০০ ছাড়ালো।। করোনাভাইরাস: বিশ্বজুড়ে অর্ধেকের বেশি ফ্লাইট বন্ধ করে দিল বিমান বাংলাদেশ ।। বড় জমায়েত এড়িয়ে চলতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ।। করোনা আতঙ্কে কোয়ারেন্টাইনে পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট ।। যুক্তরাষ্ট্রের ৩৪ রাজ্যে করোনার হানা, মৃত বেড়ে ২১

সর্বশেষ বিশ্ব করোনা সংবাদ ।। বিশ্বব্যাপী এখন আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯। নিয়ন্ত্রণে আসার কোনও নামই নিচ্ছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। যেন বিশ্বব্যাপী ত্রাসে

র কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ভাইরাস। এরই মধ্যে ১০৪টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯। বাংলাদেশেও তিনজন করোনা আক্রান্তকে শনাক্ত করা হয়েছে।

চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর তিন মাস পরও তাণ্ডব চালাচ্ছে। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী এই ভাইরাস শিগগিরই করোনার প্রকোপ কমার কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন চীনের অন্যতম প্রধান রোগ বিশেষজ্ঞ ঝং নানশান।

২০০২-২০০৩ সালের সার্স (সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিন্ড্রোম) ভাইরাসের আবিষ্কারক এই বিজ্ঞানী জানিয়েছেন, অন্তত আগামী জুন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের সংক্রমণ চলবে। রবিবার চীনা গণমাধ্যম গুয়াংডং টেলিভশনকে তিনি এ কথা বলেন।

ঝং নানশানের মতে, চীনের এখন করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধের চেয়ে বিদেশ থেকে ভাইরাস আক্রান্তদের প্রবেশ বন্ধ করায় বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত। বিশেষ করে দেশটির অন্যতম প্রধান ভ্রমণকেন্দ্র গুয়াংডং প্রদেশে বেশি কড়াকড়ি আরোপ করা দরকার।

তিনি বলেন, সীমান্তে স্বাস্থ্য পরীক্ষা জোরদার এবং বিদেশের ভাইরাস সংক্রমিত অঞ্চল ভ্রমণকারীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন নীতিনির্ধারণ করা উচিত। এছাড়া গুয়াংডংয়ের মতো বেশি সংক্রমিত অঞ্চলগুলোতে ভাইরাস প্রতিরোধের সরঞ্জাম, পরীক্ষার উপকরণ, চিকিৎসা সহায়তা পাঠানো যেতে পারে।

করোনা আতঙ্কে কোয়ারেন্টাইনে পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট

বিশ্বজুড়ে দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। বিভিন্ন দেশ করোনা রুখতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। করোনায় আক্রান্তের শঙ্কায় রয়েছেন অনেক দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরাও। তেমনই শঙ্কার কারণে নিজ থেকে কোয়ারেন্টিনে গিয়েছেন পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রিবেলো ডি সুজা। রবিবার দেশটির সরকারি ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, গত মঙ্গলবার পর্তুগালের উত্তরাঞ্চলীয় একটি স্কুলের একদল শিক্ষার্থীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মার্সেলো রিবেলো। এমনকি পাশাপাশি দাঁড়িয়ে ছবিও তোলেন তারা। গত শনিবার ওই দলটির এক শিক্ষার্থীর শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এ কারণে সতর্কতাস্বরূপ দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে থাকার সিদ্ধান্ত নেন প্রেসিডেন্ট। তবে কোনো সরকারি কোয়ারেন্টিন সেন্টার নয়, দুই সপ্তাহ নিজ বাড়িতেই আলাদা থাকবেন তিনি।

বলা হয়, শরীরে করোনা আক্রান্তের কোনও লক্ষণ না থাকলেও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের পরামর্শ মেনে দুই সপ্তাহের জন্য কোয়ারেন্টিনে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পর্তুগিজ প্রেসিডেন্ট। এ সময়ে তিনি কোনও ধরনের প্রকাশ্য কার্যক্রমে অংশ নেবেন না।

পর্তুগালের এখন পর্যন্ত ৩০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। তবে নিহতের ঘটনা ঘটেনি। করোনা প্রতিরোধে এরই মধ্যে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটি।

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে শনিবার পর্যন্ত বিশ্বে নিহত হয়েছেন ৩৮৩১ জন এবং আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১০ হাজারের বেশি। চীনে করোনার প্রভাব কমতে শুরু করলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, ইরান, ইতালি। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রেও আক্রান্ত ও নিহতের সংখ্যা বাড়ছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১০৩টি দেশ ও অঞ্চলে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনাভাইরাস: বিশ্বজুড়ে অর্ধেকের বেশি ফ্লাইট বন্ধ করে দিল বিমান বাংলাদেশ

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে সংকট তৈরি হওয়ায় সারাবিশ্বে চালানো ১৪২টি ফ্লাইটের মধ্যে ৬৬টি আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

বিমানের এমডি মোকাব্বির হোসেন সোমবার বিবিসি বাংলাকে বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে যাত্রী সংখ্যা কমে যাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি জানান, কাতার সরকারের নিষেধাজ্ঞার কারণে আজ ৯ মার্চ থেকে দোহাগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটসমূহ পরবর্তী সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত বাতিল করা হল। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় যাত্রী সংকট তৈরি হওয়ায় সারা বিশ্বে চালানো ১৪২টি ফ্লাইটের মধ্যে ৬৬টি আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এর আগে বাংলাদেশের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কারণে কুয়েত এবং কাতারে সব ফ্লাইট বাতিল করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

এবার আরো নয়টি রুটে ফ্লাইট কমিয়ে আনা হলো। এসব রুটের মধ্যে রয়েছে কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, সিঙ্গাপুর, কাঠমান্ডু, দিল্লি, কলকাতা, জেদ্দা ও মদিনা।

কতদিন এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে এমন প্রশ্নে মোকাব্বির হোসাইন বলেন, কুয়েত আর কাতার যেহেতু নিজেরাই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে, তাই সেখানে তাদের কিছু করার নেই। ওই দেশের সরকার নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে নিলে তখন যোগাযোগ স্বাভাবিক হবে।

আর করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এবং যাত্রী সংখ্যা বাড়লে অন্য রুটগুলোতে ফ্লাইটের সংখ্যা আবার আগের মতো বাড়ানো হবে বলেও জানান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এই কর্মকর্তা।

এদিকে দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় অতিরিক্ত সতর্কতা গ্রহণ করেছে প্রশাসন। বিদেশফেরত যাত্রীদের বিমানবন্দরে স্ক্রিনিংয়ের পাশাপাশি কোয়ারেন্টাইনে থাকারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ছয় দেশ থেকে আসা যাত্রীদের কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। দেশগুলো হচ্ছে- চীন, ইতালি, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, ইরান ও থাইল্যান্ড।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহরিয়ার সাজ্জাদ। তিনি বলেন, এ ছয় দেশ থেকে আসা যাত্রীদের বিমানবন্দরে থার্মাল স্ক্যানারে পরীক্ষা করা হচ্ছে। একই সঙ্গে স্ক্যানার দিয়ে শরীরের তাপমাত্রা মাপা হচ্ছে। একই সঙ্গে অবতরণের পর ‘হেলথ ডিক্লারেশন’ ফরম দেয়া হচ্ছে, এখানে তাদের শারীরিক বিষয়সহ বিভিন্ন তথ্য পূরণ করতে হবে। স্বাস্থ্য তথ্য কার্ডও দেয়া হচ্ছে। ছয় দেশ থেকে আসা যাত্রীদের শরীরে জ্বর না থাকলেও তাদের বাধ্যতামূলকভাবে নিজ বাড়িতে বা তারা যেখানে থাকবেন, এখানে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

তবে বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময় যদি যাত্রীর শরীরে তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট বা এর বেশি তাপমাত্রা থাকে, তা হলে তাকে সরাসরি কুয়েতমৈত্রী হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

গত ২১ জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত শাহজালাল বিমানবন্দরে ২ লাখ ৬ হাজার ১০ যাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৬১ জনের জ্বর ছিল। আর পাঁচজনকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। রোববার সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা জানান, ধরা পড়া করোনা রোগী দুজন ইতালিফেরত। তিনজনের মধ্যে দুজন পুরুষ ও একজন নারী। তাদের সংস্পর্শে আসা ৪০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সরকার ও স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে করোনা নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বড় জমায়েত এড়িয়ে চলতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা

করোনাভাইরাসের কারণে বড় জমায়েত এড়িয়ে চলতে সকলকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর এ আহ্বানের কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম জানান, করোনাভাইরাস বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধরা পড়েছে। আমাদের প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে। আমরা সব সময়ই এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা নিয়ে থাকি। চীন থেকে যখন ছাত্রদের নিয়ে আসা হলো তখনও আমরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে কোয়ারেনটাইনে রাখার ব্যবস্থা করেছিলাম।

তিনি বলেন, বড় গ্যাদারিং এড়িয়ে চলব, অ্যাভয়েড করব যতদূর সম্ভব, সেটাই (প্রধানমন্ত্রীর) নির্দেশনা। উনি বলেছেন যে, এখন আমাদের কী করতে হবে, আপনাদের কাছে যে অনুরোধটা আমাদের মাধ্যমে উনার- সেটা হলো যে আমরা যেন আতঙ্কিত না হই। কারণ এটা একটা ভাইরাস।

আসাদুল ইসলাম বলেন, এটা নিয়ে আমাদের আকঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। পৃথিবীতে এ ঘটনা ঘটেছে তারা ম্যানেজ করছে। আমরা মিডিয়া থেকে জানতে পারছি এতো লোক আক্রান্ত হয়েছে, এতো লোক মারা গেছে। কিন্তু যেটা কম শুনেছি সেটা হলো কতো লোক সুস্থ হয়ে গেছে।

এ ছাড়া মন্ত্রিসভায় বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর আইন ২০১৯ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। আইনে ভার্চুয়াল জাদুঘর করার বিষয়টিও যুক্ত করা হয়েছে। এতে ২৫টি ধারা রয়েছে।

করোনাভাইরাসে মৃত ৩ হাজার ৮০০ ছাড়ালো

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এরই মধ্যে এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ৮০০ ছাড়িয়ে গেছে। এ ছাড়া বিশ্বব্যাপী এই ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১ লাখ ৯ হাজার ছাড়িয়েছে।

সোমবার সকালে সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৮০৬ জনের। এর মধ্যে শুধু চীনেই মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ১১৯ জনের। বিশ্বজুড়ে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস বা কভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৯ হাজার ৪৫ জনে। এ ছাড়া আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে উঠেছেন ৬২ হাজার ১৭৬ জন।

চীনের পর করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি হয়েছে ইউরোপের দেশ ইতালিতে। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৩৬৬ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এর মধ্যে রোববার একদিনেই দেশটিতে মৃত্যু হয় ১৩৩ জনের।

ইতালির পর তৃতীয় সর্বোচ্চ প্রাণহানি হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ১৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া দক্ষিণ কোরিয়ায় ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

অন্য দেশগুলোর মধ্যে ফ্রান্সে ১৯ জন, যুক্তরাষ্ট্রে ১১ জন, স্পেনে ৮ জন, জাপানে ৬ জন, ইরাকে ৪ জন, যুক্তরাজ্যে ৩ জন, নেদারল্যান্ডসে ৩ জন, হংকংয়ে ৩ জন, অস্ট্রেলিয়ায় ৩ জন, সুইজারল্যান্ডে ২ জন, থাইল্যান্ডে ১ জন, মিসরে ১ জন, তাইওয়ানে ১ জন, সান ম্যারিনোতে ১ জন, আর্জেন্টিনায় ১ জন, ফিলিপাইনে ১ জন, এবং বিলাসবহুল প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সে থাকা ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়। এরপর দ্রুতই গোটা চীনে ছড়িয়ে পড়ে এই ভাইরাস, সঙ্গে বাড়তে থাকে প্রাণহানিও। সাম্প্রতিক সময়ে চীনে প্রাণহানি ও নতুন করে আক্রান্তের যে তথ্য মিলছে তা ইতিবাচক হলেও অন্যদেশগুলোতে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া অব্যাহত রয়েছে। চীনের পর এই ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি পাণহানি ইতালিতে হলেও আক্রান্ত বেশি হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়।

তবে ইতালিতে প্রাণহানি বাড়তে থাকায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশটির লমবার্ডিসহ আরো ১৪টি প্রদেশে অন্তত এক কোটি ৬০ লাখ মানুষকে বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। ইতালির প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কেউ কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরিয়ে আসলে তাকে তিন মাস জেলে কাটাতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ৩৪ রাজ্যে করোনার হানা, মৃত বেড়ে ২১

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে আরো দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২১ জনে দাঁড়ালো।

এছাড়া দেশটিতে হুহু করে বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত ৫ শ’ ছাড়িয়েছে। দেশটির ৩৪ রাজ্যে হানা দিয়েছে এই ভাইরাস।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশজুড়ে এখন করোনায় আক্রান্ত ৫৬৪ জন। এদের মধ্যে ক্যালিফোর্নিয়া, ওয়াশিংটন ও নিউ ইয়র্কে আক্রান্তে সংখ্যা বেশি।

এদিকে ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়েছে, করোনায় মোকাবিলায় তার মন্ত্রণালয় সম্পূর্ণরূপে কাজ করছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইসের আবির্ভাব ঘটে। এরপর ১০০ টি’র বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস।

বর্তমানে চীনে এই ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়লেও অন্যান্য দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস।

সর্বশেষ সংবাদ     
কানাডার সংবাদ
দেশ-বিদেশের টাটকা খবর আর অন্যান্য সংবাদপত্র পড়তে হলে cbna24.com
সুন্দর সুন্দর ভিডিও দেখতে হলে প্লিজ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

 

 

 

cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

11 + 10 =