৫ম বর্ষপূর্তি

সম্পাদকীয় ! ৫ম বর্ষপূর্তি এবং ৬ষ্ঠ বর্ষে প্রদার্পণে আমার কিছু কথা!

সম্পাদকীয় ! ৫ম বর্ষপূর্তি এবং ৬ষ্ঠ বর্ষে প্রদার্পণে আমার কিছু কথা!

ফেব্রুয়ারিতে মহান শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে সামনে রেখেই জন্ম হয়েছিলো দেশদিগন্ত মিডিয়া পরিবারের সংবাদ মাধ্যম ‘কানাডা-বাংলাদেশ নিউজ এজেন্সি সিবিএনএ যা ধারাবাহিকভাবে সিবিএনএ২৪ডটকম। হাঁটি হাঁটি পা পা করে আত্মপ্রকাশের পাঁচ বছর পেরিয়ে ৬ বছরে পা রাখলো। প্রবাসে পাঁচ বছর চালিয়ে ৬ বছরে পা রাখা মনে হয় সহজ পথ চলা ছিলো না।

৫ বছর পূর্তিতে দুর্গম যাত্রাপথে প্রথমেই সবিনয়ে বিনম্র চিত্তে আমাদের সম্মানীত পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতা, সুহৃদ শুভাঙ্ক্ষাকী, শুভানুধ্যায়ী, এবং সিবিএনএ-এর সম্মানীত উপদেষ্টাবৃন্দ, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্যবৃন্দ, সংবাদদাতা, বিভিন্ন সহযোগি গণ মাধ্যম, এবং সিবিএনএ পরিচালনা পরিষদের প্রিয় টিম যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করে ওয়েবসাইটকে অত্যন্ত গতানুগতিক মানসম্পন্ন ডিজিটাল করে তুলেছেন তাঁদের সবাইকে জানাই প্রাণঢালা শুভেচ্ছা, কৃতজ্ঞতা, অভিনন্দন, অভিবাদন এবং অফুরন্ত ধন্যবাদ।

আমাদের ইচ্ছে ছিলো বর্ষপূতিতে একটি বিশেষ মুদ্রণ সংখ্যা গ্রন্থাকারে প্রকাশ করবো ঠিক গত বছর দেশ ও প্রবাসের লেখক-কবি গল্পকারদের চমৎকার লেখা দিয়ে প্রায় আড়াইশ পৃষ্টার গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছিলো যা দেশে-বিদেশে পাঠককুলে প্রশংসা অর্জন করতে পেরেছিলো। আমরা অঙ্গিকার করেছিলাম এবছর ৫ম বর্ষপূর্তিতেও প্রকাশ করবো ফলে বাংলাদেশে অংকন প্রকাশনী সব প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিলো কিন্ত হঠাৎ করেই  শব্দহীন, বারুদের গন্ধহীন এক প্যান্ডামিক কোভিড বিশ্ব যুদ্ধে তছনছ করে দিলো সব কিছু। মৃত্যুর মিছিলে ভয় আর আতঙ্কে কম্পমান তাবৎ বিশ্ব যখন ক্ষত-বিক্ষত তখন আমাদের এই প্রকাশনা স্বাভাবিক কারনেই স্তগিত রাখতে হয়েছে। করোনাকালের দুঃসহ দহন নিয়ে আমরা সব আয়োজন স্থগিত রেখেছি। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসলে অবশ্যই আগামী বছর বিশেষ কলোবরে মুদ্রণ সংখ্যা বের হবে।

করোনা দুর্যোগের অন্ধকারাচ্ছন্ন রাত পেরিয়ে আমরা শুভবোধে স্নাত হবো, নতুন সূর্যোদয়ের কিরণে ঝলমল করে উঠবে আমাদের প্রাণের প্রত্যাশিত দিনক্ষণে আবারও রকমারি মেলা আনন্দানুষ্ঠানে ভরে উঠবে মন-প্রাণ ।

আমি জানি যেকোন ভালো কাজই হোকনা কেন আলোচনা-সমালোচনা থাকবেই। একটি পত্রিকা জন্ম দেওয়া সহজ ঠিক সন্তানের মতো কিন্তু ধারাবাহিকভাবে খাদ্য-উপাথ্য দিয়ে বড় করে তোলা কিংবা ধারাবাহিভাবে চালাতে গেলে অর্থের প্রয়োজন হয়। সিবিএনএ ও তার ব্যতিক্রম নয়। প্রতি বছর অনেক টাকা খরচ করতে হয়, কিন্তু আয়ের তুলনায় ব্যয়ের পরিমান কয়েকগুন বেশী। সিবিএনএ-এর প্রকাশনা সত্যিকথা বলতে কি সাংবাদিকতার নেশা থেকেই প্রকাশ। এটা কোন লাভজনক প্রতিষ্ঠান নয় বরং আর্থিক ক্ষতি জেনেও চালিয়ে যেতে হয় অভ্যাস হিসেবে।

এই পত্রিকা চালাতে গিয়ে কয়েকজন মানুষের কাছে আমি ঋণি, যাঁদের সহযোগিতা আমাকে এই কষ্টের মধ্যেও এগিয়ে যেতে প্রেরণা যোগাচ্ছে তাঁদের মধ্যে আমাদের প্রধান উপদেষ্টা বিদ্যুৎ ভৌমিক, ওয়েবসাইট ডিজাইনার ফরিদ হোসেন, গ্রাফিক ডিজাইনার রনি সাহা এবং আমার স্ত্রী তামসী দেবরায়। যাঁরা বাণী দিয়ে, লেখা দিয়ে বর্ষপূর্তি সংখ্যাকে সমৃদ্ধ করেছেন তাঁদেরকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

গর্ব কিংবা অহংকার নেই এ অর্জনে। প্রবাসে এ প্রয়াস চালিয়ে যাওয়া ভীষণ কষ্টদায়ক, তারপরেও আমরা শেষ চেষ্টা চালিয়ে এগিয়ে যাবো এ প্রত্যয় রয়েছে। সবার ভালোবাসা আর সহযোগিতাই আমাদের পথ চলা।

গত বছর এবং এবছরের বর্ষপূর্তিতে  সিবিএনএ নিয়ে লিখতে গিয়ে আমাকে নিয়ে অনেক প্রশংসা করেছেন আমাকে ভালোবেসে কিন্তু আসলে আমি ততোটা যোগ্য নয় ফলে বিব্রতবোধ করলেও তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে লেখাগুলো প্রকাশ করতে হয়েছে সবিনয়ে বলছি আমার প্রচারের জন্য নয়।

সম্পাদকীয়তে কোন কারনে কেউ দুঃখ পেলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এ প্রত্যাশা।

২১ শে ফেব্রুয়ারি মহান শহিদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে সকল মহান শহীদদেরকে বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছি এবং সিবিএনএ পরিবারের পক্ষ থেকে সবাইকে শুভেচ্ছা  জানাচ্ছি।

সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং সত্য ও সুন্দরের প্রতি আমরা সবাই অবিচল থাকবো এ প্রত্যাশা।

  • বাংলাদেশ চিরজীবী হোক
  • বাংলা ভাষার জয় হোক
  • প্রবাসে বাঙালির প্রতিটি সন্তান বাংলা ভাষায় কথা বলবে এ প্রত্যাশা
  • আমৃত্যু যেনো বলে যেতে পারি বাংলা আমার ভাষা, আমি বাঙালি আর বাংলাদেশ আমার গর্ব, আমার অহংকারের দেশ।
-সদেরা সুজন, সম্পাদক ও প্রধান নির্বাহী, সিবিএনএ
মন্ট্রিয়ল,  ২১.২. ২০২১

 


সর্বশেষ সংবাদ

দেশ-বিদেশের টাটকা খবর আর অন্যান্য সংবাদপত্র পড়তে হলে CBNA24.com

সুন্দর সুন্দর ভিডিও দেখতে হলে প্লিজ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন