খেলা

হাইকোর্ট বললেন কালীপূজায় না মসজিদে যাবে- এটা সাকিবের ব্যাপার

হাইকোর্ট বললেন কালীপূজায় না মসজিদে যাবে- এটা সাকিবের ব্যাপার

কলকাতায় কালীপূজার অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে গত নভেম্বরে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকি দেওয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, ‘একজন বিশ্বমানের ক্রিকেটার কালীপূজায় নাকি মসজিদে যাবে- এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। এ জন্য তাকে কেউ হত্যার হুমকি দিতে পারে না।’

সাকিবকে হত্যার হুমকির মামলার আসামির জামিন আবেদনের শুনানিকালে গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

এদিকে সাকিবকে হত্যার হুমকিদাতা সিলেটের তরুণ মহসিন তালুকদারকে কেন জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে এদিন রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। ওই আসামিকে জামিন না দিয়ে গতকাল দুই বিচারপতির বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ, আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম কাফি ও মো. জাহাঙ্গীর হোসেন। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বশির উল্লাহ জানান, আদালত মহসিন তালুকদারকে জামিন না দিয়ে এ প্রশ্নে চার সপ্তাহের রুল জারি করেছেন। গত বছরের ১৭ নভেম্বর সুনামগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার পর থেকে মহসিন কারাগারে আছেন।

গত ১২ নভেম্বর কলকাতায় একটি কালীপূজার অনুষ্ঠানে যান সাকিব। যা নিয়ে ১৫ নভেম্বর রাত ১২টা ৭ মিনিটে ফেসবুক লাইভে এসে দা উঁচিয়ে সাকিবকে অকথ্য ভাষায় গালাগালসহ কুপিয়ে হত্যার হুমকি দেন মহসিন। সেই সঙ্গে সাকিবকে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের অনুসরণের কথাও বলেন। যদিও পরদিনই ভোর ৬টা ৪ মিনিটে আবারও লাইভে এসে আগের ভিডিওর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন মহসিন এবং সাকিবকে জাতির উদ্দেশে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। তার এই হুমকির ভিডিও ভাইরাল হলে ১৬ নভেম্বর পুলিশ মহসিনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে। মহসিন সিলেট সদর উপজেলার টুকেরবাজার ইউনিয়নের শাহপুর তালুকদারপাড়া গ্রামের আজাদ বক্স তালুকদারের ছেলে। -সূত্রঃ আমাদের সময়

আপনার মন্তব্য লিখুন