La Belle Province

কানাডা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার

করোনাভাইরাস: দেশজুড়ে কারফিউ দিতে পারে যুক্তরাজ্য

| ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ১:০৪


করোনাভাইরাস: দেশজুড়ে কারফিউ দিতে পারে যুক্তরাজ্য

আ স ম মাসুম, যুক্তরাজ্য

দেশজুড়ে কারফিউ দিতে পারে বৃটেন। এমনটা হলে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বাধ্যতামূলকভাবে বন্ধ করতে হবে রাত ১০টার মধ্যে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক ঘোষণা দিয়েছেন ব্রিটিশ শহর বল্টনে বার এবং রেস্তোরাঁ খোলা রাখা যাবে কাস্টমারকে সরবরাহ দেয়া পর্যন্ত। অবশ্যই তা বন্ধ রাখতে হবে রাত ১০টা থেকে ভোর ৫ টা পর্যন্ত।

ডেইলি টেলিগ্রাফ বলছে, ব্রিটিশ মন্ত্রীরা বৃটেনজুড়ে নতুন করে কারফিউ দেয়ার কথা বিবেচনা করছেন। বেলজিয়ামে এ ব্যবস্থা সফল হওয়ার পর এমন চিন্তাভাবনা চলছে। ওদিকে আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ইংল্যান্ডে ৬ জনের বেশি মানুষকে একত্রিত হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল ও বিবিসি।

মঙ্গলবার বল্টনের পাব-এ যাওয়া ব্যক্তিদের নতুন লকডাউন আরোপের সময়ের আগেই সেখান থেকে চলে যেতে বলা হয়েছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে তরুণদের পার্টি করা বন্ধ করার জন্য এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ম্যাট হ্যানকক বলেছেন, প্রতি এক লাখ মানুষের মধ্যে বল্টনে আক্রান্ত হয়েছেন ১২০ জন। এর কারণ, ব্রিটেনে ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সীদের পাব-এ সময় কাটানোর সময় বৃদ্ধি পেয়েছে। এর প্রেক্ষিতে সরকারের একজন সিনিয়র সূত্র বলেছেন, দেশজুড়ে কারফিউ বৃদ্ধি করার বিষয়ে আলোচনা করেছেন মন্ত্রীরা। একই সঙ্গে সরকার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার প্রচারণার ওপর জোর দেবে। যারা নিয়ম লঙ্ঘন করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা জোরালো করা হবে।

কনজারভেটিভ পার্টির কমন্স হেলথ এন্ড সোশ্যাল কেয়ার সিলেক্ট কমিটির চেয়ারম্যান জেরেমি হান্ট জানতে চেয়েছেন, দক্ষিণ কোরিয়া এবং হংকং করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে যে ব্যবস্থা নিয়েছে, দ্বিতীয় দফায় করোনা সংক্রমণের ঢেউ থামাতে তারা যে পদক্ষেপ নিয়েছে, ব্রিটিশ সরকার কি সে বিষয়ে বিবেচনা করবে কিনা। এ নিয়ে বিস্তর আলোচনা হয়েছে মন্ত্রীদের মধ্যে।

আক্রান্তের সংখ্যা অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যাওয়ার ফলে সরকার সোশ্যাল গ্যাদারিং বা জন সমাবেশ সম্পূর্ণ ভাবে প্রত্যাহার করা হচ্ছে। করোনাভাইরাসের মৃত্যুর সংখ্যা কিছুটা কম হওয়াতে ধাপে ধাপে লক ডাউন তুলে নেওয়ার পর সর্বোচ্চ ৩০ জনের উপস্থিতিতে সামাজিক সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হলেও করোনা রোগী প্রতিদিন মাত্রাধিক ভাবে বেড়ে যাওয়ার ফলে আগামী ১৪ই সেপ্টেম্বর, সোমবার থেকে ৬ জনের বেশী একত্রিত হওয়ার ক্ষেত্রে বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হচ্ছে।

বিশেষ করে ইংল্যান্ডে চরম আকার ধারণ করেছে। আর তাই বাধ্য হয়েই কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে সরকার।

আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার থেকে ৬ জনের বেশি লোক একত্রিত হওয়া নিষিদ্ধ করা হচ্ছে ইংল্যান্ডে। ফলে ঘরে কিংবা বাইরে ৬ জনের বেশি মানুষের মিলা মেশা বা সমাবেশ করা যাবে না।

তবে প্রধানমন্ত্রীর অফিস জানিয়েছে, এই নিয়ম স্কুল, কর্মক্ষেত্র, কোভিড-১৯ সুরক্ষিত বিবাহ, ফিউনারেল এবং খেলার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না।

নতুন এই নিয়ম ভঙ্গ করলে এবং পুলিশকে যথাযথ কারণ দেখাতে ব্যর্থ হলে ১০০ পাউন্ড জরিমানা এবং বারবার নিয়ম ভঙ্গ করলে ৩২০০ পাউন্ড পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

নতুন নিয়মের আরও ব্যাখ্যা সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হবে। বুধবার বিকালে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া এখনই থামাতে হবে। তাই সামাজিক যোগাযোগের ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হবে। পুলিশ তা কার্যকর করবে।

 

সিএ/এসএস


সর্বশেষ সংবাদ

দেশ-বিদেশের টাটকা খবর আর অন্যান্য সংবাদপত্র পড়তে হলে CBNA24.com

সুন্দর সুন্দর ভিডিও দেখতে হলে প্লিজ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

Facebook Comments

চতুর্থ বর্ষপূর্তি

CBNA24 4th Anniversary Book

Voyage

voyege fly on travel

cbna24 youtube

cbna24 youtube subscription sidebar

Restaurant Job

labelle ads

Moushumi Chatterji

moushumi chatterji appoinment
bangla font converter

Sidebar Google Ads

error: Content is protected !!