প্রবাসের সংবাদ

ক্যানসাস স্টেট ইয়ং ডেমক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশি রায়ান

ক্যানসাস স্টেট ইয়ং ডেমক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশি রায়ান
রায়ান রেজা

ক্যানসাস স্টেট ইয়ং ডেমক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশি রায়ান ।। প্রবাস প্রজন্মের মার্কিন রাজনীতিতে ধাবিত হবার ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ক্যানসাস অঙ্গরাজ্যের রায়ান রেজা। এই রাজ্যের ইয়ং ডেমক্র্যাটিক পার্টির নির্বাচনে তিনি প্রেসিডেন্ট হিসেবে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। গত ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হয় এই নির্বাচন।

এর আগে রায়ান রেজা এই পার্টির সেক্রেটারি এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। রায়ান রেজা নারায়নগঞ্জের সন্তান এবং সাড়ে ৩ দশকেরও অধিক সময়ের প্রবাসী এবং ফোবানার সাবেক চেয়ারম্যান রেহান রেজার পুত্র।

‘বিল্ডিং এ ব্রাইটার ফিউচার’ স্লোগানে উজ্জীবিত ক্যানসাস ইয়ং ডেমক্র্যাটিক পার্টি গঠিত হয়েছে ১৯৩৩ সালে। সান ফ্লাওয়ার রাজ্য হিসেবে পরিচিত ‘ক্যানসাস’র প্রগতিশীল চিন্তা-চেতনার যুব সমাজকে (১৩ থেকে ৩৫ বছর বয়েসী) যুক্তরাষ্ট্রের এগিয়ে চলার ক্ষেত্রে আরো জোরালোভাবে সম্পৃক্ত করার অভিপ্রায়ে এই সংগঠন ডেমক্র্যাটিক পার্টির যুব ফ্রন্ট হিসেবে মাঠে রয়েছে। ক্যানসাসের বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি ও কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরাই মূলত: এর সাথে জড়িত।ক্যানসাস স্টেট ইউনিভার্সিটিতে আন্তর্জাতিক রাষ্ট্রবিজ্ঞানে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রায়ান রেজা হলেন প্রথম এশিয়ান-আমেরিকান প্রেসিডেন্ট এবং তার বাবা রেহান রেজা বর্তমানে ক্যানসাস স্টেট এশিয়ান-আমেরিকান প্যাসিফিক আইল্যান্ডার্স ককাসের চেয়ারম্যান। অর্থাৎ বাবার পথেই মার্কিন রাজনীতিতে অগ্রসর হচ্ছেন রায়ান।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর রায়ান বলেছেন, আসছে নভেম্বরের নির্বাচনের গুরুত্ব অপরিসীম। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এমন নেতৃত্ব বাছাই করতে হবে যারা যুক্তরাষ্ট্রকে সঠিক ট্র্যাকে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবেন। ক্যানসাসের যুব সমাজ সেভাবেই সংগঠিত রয়েছে এবং আমরা আমেরিকার নীতি-নৈতিকতার পরিপূরক মন্ত্রে উজ্জীবিতদের জয়ী করতে বদ্ধ পরিকর।

এই কমিটিতে ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট, সেকেন্ড ভাইস প্রেসিডেন্ট, সেক্রেটারি এবং ট্রেজারার ছাড়াও রয়েছেন ৪ বোর্ড মেম্বার। এই ইয়ং ডেমক্র্যাটিক পার্টির চ্যাপ্টার রয়েছে ২১টি। মোট সদস্য ১০০০।

 

cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

eight − three =