বিশ্ব

সেলফি তুলে ট্রেনের নিচে প্রেমিক যুগল

সেলফি তুলে ট্রেনের নিচে প্রেমিক যুগল

সেলফি তুলে পোস্ট করেই ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিলেন প্রেমিক যুগল

রেল লাইনে দাঁড়িয়ে প্রথমে প্রেমিকাকে সিঁদুর পরালেন প্রেমিক।  এরপরে সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে একসঙ্গে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করল সেই যুগল। এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে বুধবার রাতে ভারতের দক্ষিণ-পূর্ব রেলের উলুবেড়িয়া স্টেশনের কাছে। পরে রেল লাইনের কাছে তাদের ছিন্নভিন্ন দেহ পাওয়া যায়।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, বুধবার রাতে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়াতে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের উলুবেড়িয়া স্টেশনের কাছে রেললাইনের পাশে মেলে যুগলের ছিন্নভিন্ন দেহ।

রেল পুলিশ কর্তৃপক্ষ জানায়, মৃত কিশোরের নাম রূপম বানু (১৭) ও কিশোরীর নাম স্নিগ্ধা কারক (১৭)। বাগনানের নবাসনের আনন্দ নিকেতন স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ছিল রূপম। আর স্নিগ্ধ পড়ত ওই স্কুলের মানবিক বিভাগে। শিক্ষকেরা জানান, রূপম ছিল অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র। আর দু’জনেরই এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দেয়ার কথা ছিল।

জানা যায়, স্কুলের ক্লাসে বন্ধুত্ব ছাপিয়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে রূপম ও স্নিগ্ধা। কিন্তু দুজনের প্রেমে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় পারিবারিক মর্যাদা ও সামাজিক অবস্থান। এতে দুজনে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয়।

রূপমের বাড়ি রাজাপুর থানার চক ভগবতীপুরে। তারা এক ভাই আর তিন বোন। ব্যবসায়ী বাবার কল্যাণে রূপমদের নতুন বাড়ি। তার উল্টো দিকে স্নিগ্ধাদের অবস্থা করুণ। তার বাবা মানসিক ভারসাম্যহীন। আর মায়ের ছোটখাটো কাজে চলে সংসার।

এলাকা সূত্রে জানা যায়, কয়েক দিন আগে স্নিগ্ধার ছবি বাড়িতে দেখায় রূপম। খুলে বলে তাদের সম্পর্কের কথা। তাতে প্রচুর বকাঝকা শুনতে হয় রূপমকে। দু’জনের সম্পর্ক মানতেও চাননি পরিবারের লোকজন।

এদিন পরীক্ষার নোট আদান-প্রদানের কথা বলে দুজনেই এক সঙ্গে বের হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্নিগ্ধা বাড়িতে ফোন করে জানায়, তারা বিয়ে করেছে। এক আত্মীয়কে সিঁদুর পরা তার ছবিও পাঠায়। পরিবার থেকে তাদের ঘরে আসার অনুরোধও জানানো হয়। পরে বহুবার চেষ্টা করেও ফোনে পাওয়া যায়নি তাদের।

আরও পড়ুনঃ

সর্বশেষ সংবাদ                                 

কানাডার সংবাদ

দেশ-বিদেশের টাটকা খবর আর অন্যান্য সংবাদপত্র পড়তে হলে cbna24.com 

cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

15 − 1 =