সাহিত্য ও কবিতা

একুশ আমার অহংকার ||||  বিশ্বজিৎ মানিক

একুশ আমার অহংকার ||| বিশ্বজিৎ মানিক

হে একুশ – তুমি মহান একুশ, আমার অহংকার
হে মহান একুশ- তুমি বিশ্বের বিষ্ময়! রক্তস্নাত আশীর্বাদ
তুমি রফিক জব্বার বরকত সালাম শফিউরের গগনবিদারী স্লোগান
তুমি পিচঢালা রাজপথে তাজা খুন, বুলেটের আওয়াজ
তুমি কৃষক শ্রমিক ছাত্র জনতার বুকফাটা চিৎকার
রাষ্ট্র ভাষা বাংলা চাই, মানতে হবে।

একুশ তুমি আমার মুখের ভাষা, হৃদয় নিংড়ানো কণ্ঠস্বর
তুমি পল্লীবালার হাতের কাঁকন, কৃষকের বিমোহিত গান
তুমি ধীরেন্দ্র নাথ দত্তের আটচল্লিশের প্রস্তাবনার ফসল
তুমি যুবকের মুষ্টিবদ্ধ হাতের মাথা উঁচু করা হাঁক
তুমি মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর দাঁত ভাঙা জবাব
হে মহান একুশ তুমি আমার অহংকার।

তুমি আট’ই ফাল্গুন তের’শ আটান্ন বৃহস্পতিবার
তুমি বজ্রকণ্ঠের ভাষণ, পরাক্রমশালী নিউক্লিয়াস
তুমি স্বাধীনতার আতুড়ঘর, বঙ্গমাতার প্রসব বেদনা
তুমি স্যালাইন কোরামিন এন্টিবায়োটিক
তুমি হারিকেন সিডর টর্নেডো আম্পান
তুমি লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছিলে জান্তার আস্ফালন।

একুশ তুমি কামানের বিপরীতে প্রজ্জ্বলিত মশাল মিছিল
একুশ তুমি জীবনানন্দের রূপসী বাংলার বনলতা সেন
একুশ তুমি রজনীগন্ধা আর গোলাপের আঁটি
একুশ তুমি কিশোরীর মাথায় গাঁদা ফুলের চুলের বেড়ি
একুশ তুমি দেশের আনাচে কানাচে প্রতিষ্ঠিত শহীদ মিনার
একুশ তুমি নগ্নপদে হেঁটে গাওয়া প্রভাত ফেরির প্রতিবাদী গান
একুশ তুমি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস
হে একুশ তুমি আমার অহংকার।

২০/০২/২০২১ খ্রিস্টাব্দ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Comments are closed.