খেলা

এবার কার রেসিং এ অংশ নিলেন সৌদি তরুণী রিমা

রিমা জুফালি কার রেসিং
 
ইতোমধ্যেই সৌদি তরুণী রিমা জুফালি পুরো পৃথিবীতে নিজেকে একজন রোল মডেলে পরিণত করেছেন। দেশের প্রথম নারী রেসার হিসেবে ২০১৮ সালে কার রেসিং এ নাম লিখিয়ে রেকর্ড গড়েন রিমা।
 
এবার প্রথমবারের মতো কার রেসিংয়ে নাম লিখিয়েছেন রিমা জুফালি। ২৭ বছর বয়সী এই তরুণী জাগুয়ার আই-পেস ই ট্রফিতে অংশ নিয়েছেন।
 
কালো ও সবুজ রঙের জাগুয়ার আই-পেসে বসা জুফালি বলেন, গত বছর নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেয়া হয়েছে। পেশাগতভাবে এই রেসে অংশ নেয়ার কথা এর আগে কখনো ভাবতেও পারতাম না। কিন্তু ঘটনা হচ্ছে, আমি এখন এমনটা করছি। এটা খুবই চমৎকার একটা সুযোগ।
 
নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর থেকেই গাড়ি চালানোয় নারীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। সেই সাথে রেসিং কার চালানোর দিকেও ঝুঁকছেন অনেক নারী।
 
২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে সৌদির বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ ঘোষণা করেন, মেয়েদের গাড়ি চালানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হবে। এরপরই রাস্তায় গাড়ির স্টিয়ারিং ধরেন নারীরা।
 
২০১৮ সালের ২৪ জুন মধ্যরাতে রিয়াদের রাস্তায় ইতিহাস সৃষ্টি হয়। কয়েক দশকের নিষেধের বাধা অতিক্রম করে ছুটে চলে গাড়ি, যার স্টিয়ারিং ছিল নারীদের হাতে। এরপরই রেসিং কারের স্টিয়ারিং হাতে আরও একধাপ এগিয়ে গেলেন রীমা আল জুফালি।
 
জুনে লাইসেন্স পাওয়ার পর গত অক্টোবরেই প্রথম রেসে অংশ নেন তিনি। কলেজে পড়তে পড়তেই ফর্মুলা ওয়ানের প্রতি ঝোঁক বাড়ে রীমার। তারপর রেসিং কার লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেন তিনি। ফর্মুলা কার রেসিং স্কুলে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তিনি।
 
সংবাদটি শেয়ার করুন
cbna24-7th-anniversary

Leave a Reply

Your email address will not be published.

eleven + five =