La Belle Province

কানাডা, ৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদে ভাঙ্গন

সিবিএনএ অনলাইন ডেস্ক | ১৫ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:২৮


ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদে ভাঙ্গন , সাবেক ডাকসু ভিপি নুর বললেন সরকার করাচ্ছে

বাংলাদেশে সরকারি চাকুরীতে কোটা সংস্কারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় গড়ে ওঠা সংগঠন, ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের একদল নেতা নিজেদের সংগঠনটির নেতা হিসেবে ঘোষণা করেছেন।

একই সঙ্গে তারা ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক ও পরিষদের যুগ্ম আহবায়কদের একজন, মুহাম্মদ রাশেদ খানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন।

আজ ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে তারা সংগঠনটির একটি কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করেছেন- যাতে আহ্বায়ক হিসেবে রাখা হয়েছে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক এপিএম সোহেলকে।

মিস্টার সোহেল বিবিসি বাংলাকে বলছেন তারা সংগঠন ভাঙ্গেননি, বরং অন্যায়কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে সংগঠনকে রাজনীতিকিকরণের হাত থেকে রক্ষা করেছেন।

কোটা সংস্কার আন্দোলন ও পরবর্তীতে ডাকসুর ভিপি হওয়ার পর ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের একচ্ছত্র নেতায় পরিণত হওয়া নুরুল হক নূর বলছেন, ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ কোটা সংস্কার আন্দোলনের মাধ্যমে গড়ে উঠেছিলো এবং তাতে ছাত্রলীগ, ছাত্রদল সহ বিভিন্ন সংগঠন থেকেও অনেকে এসেছিলেন।

“সম্প্রতি আমরা যখন রাজনৈতিক দল গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করেছি তখন ছাত্র অধিকার পরিষদ, যুব অধিকার পরিষদের মতো সংগঠন করেছি। আর ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নামে যারা নতুন কমিটি ঘোষণা করেছে তারা বেশিরভাগই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত। কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় তাদের সম্পৃক্ত করেছিলাম । এখন সরকার তাদেরকে ব্যবহার করছে আমাদের হেয় করার জন্য। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতাতেই কখনো মামলা হচ্ছে বা কখনো আমাদের অবাঞ্ছিত করছে,” বিবিসি বাংলাকে বলছিলেন তিনি।

দীর্ঘ ২৮ বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের নির্বাচনে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ভিপিসহ দুজন প্রার্থী জয়ী হয়েছিলো
ছবির ক্যাপশান|দীর্ঘ ২৮ বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের নির্বাচনে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ভিপিসহ দুজন প্রার্থী জয়ী হয়েছিলো


মিস্টার নূর জানান তারা শিগগিরই নাগরিক প্ল্যাটফর্ম, বাংলাদেশ গণঅধিকার পরিষদ গঠন করবেন এবং এটা জেনেই সরকার তাদের নানা ভাবে দমানোর চেষ্টা করছে।

“কারণ বাংলাদেশে এখন অগণতান্ত্রিক শাসন চলছে ও রাজনৈতিক দলগুলো কথা বলতে পারছেনা। সেখানে বাধা অতিক্রম করে আমরা একের পর এক সফল ছাত্র আন্দোলন করেছি। সরকার এসব কারনেই এখন কোটা সংস্কার আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন এমন কয়েকজনকে ব্যবহার করছে। তারাই আজ সংবাদ সম্মেলন করেছে আমাদের বিরুদ্ধে,” বলছিলেন তিনি।

তবে সরকারের সাথে তাদের যোগসাজশের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক হিসেবে আজ যার নাম ঘোষণা করা হয়েছে সেই এপিএম সোহেল।

বিবিসি বাংলাকে তিনি বলছেন সংগঠনটিতে অন্যায় নিয়ে কিছু বললেই এসব ট্যাগ দেয়া হতো তাদের (নূর-রাশেদের) পক্ষ থেকে।

সংবাদ সম্মেলনে আংশিক কমিটি ঘোষণা দিয়ে লিখিত বক্তৃতায় বলা হয়েছে, “নুরের একক সিদ্ধান্তে রাজনীতি করার প্রক্রিয়া শুরু হয় যা একপ্রকার স্বৈরতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত এবং সেই সাথে চরম বিরোধ সৃষ্টি করে সংগঠনের অভ্যন্তরে”।

এতে বলা হয়, “গুটিকয়েক নেতার অহমিকা, অহংকার, একরোখা সিদ্ধান্তের কারণে সাংগঠনিক অবক্ষয়ের দিকে ধাবিত হচ্ছে আমাদের হাজারো ত্যাগের বিনিময়ে গড়ে ওঠা সংগঠন। এরই ফলশ্রুতিতে একে একে বিভিন্ন কেলেঙ্কারি বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশ পাচ্ছে যা আমাদের জন্য খুবই লজ্জার এবং দুঃখজনক”।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে আলোচনায় এসেছিলো ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ

সম্প্রতি তিনিসহ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা করেছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী।

পরে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনেও মামলা করেছেন ওই শিক্ষার্থী।

মিস্টার নূর তখন বিবিসিকে বলেছিলেন যে, “সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় আমাদের রাজনীতিকে নষ্ট করার জন্য, আমাদের হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য তিনি এই কাজগুলো করছেন। যে মামলাগুলো করছেন, আমি মনে করি, কোনটার আইনগত ভিত্তি নেই। তাই মামলাগুলো আইনগতভাবে মোকাবেলা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি”।

মামলাগুলোকে ‘রাজনৈতিক’ আখ্যায়িত করে তিনি সেগুলোকে রাজনৈতিকভাবেই মোকাবেলা করবেন বলে জানিয়েছিলেন তখন।

আবার মিস্টার নূরসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলার বাদী ক্যাম্পাসে এখনো তার কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন।

এর মধ্যেই সংগঠনটির একাংশের নেতারা তিনিসহ দুজনকে বাদ দিয়ে নতুন কমিটি ঘোষণা করলো যাতে আহবায়ক হয়েছেন এপিএম সোহেল।

-বিবিসি  থেকে

 

সিএ/এসএস


সর্বশেষ সংবাদ

দেশ-বিদেশের টাটকা খবর আর অন্যান্য সংবাদপত্র পড়তে হলে CBNA24.com

সুন্দর সুন্দর ভিডিও দেখতে হলে প্লিজ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

Facebook Comments

চতুর্থ বর্ষপূর্তি

cbna 4rth anniversary book

Voyage

voyege fly on travel

cbna24 youtube

cbna24 youtube subscription sidebar

Restaurant Job

labelle ads

Moushumi Chatterji

moushumi chatterji appoinment
bangla font converter

Sidebar Google Ads

error: Content is protected !!