কানাডার সংবাদ

আর্থিক সহযোগিতার জন্য ২৪ ঘন্টা কাজ চলছে- জাস্টিন ট্রুডো

জাস্টিন ট্রুডো
 কোভিড-১৯ মোকাবেলায় প্রতিদিনের মতো আজও বক্তব্য দিচ্ছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ছবি সিটিভি’র নিউজ থেকে স্ক্রীন শর্ট

আর্থিক সহযোগিতার জন্য ২৪ ঘন্টা কাজ চলছে- জাস্টিন ট্রুডো ।।  প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কোভিড ১৯ ভাইরাস সংক্রামণে লড়াই, স্বাস্থ্য ও জীবন রক্ষার  প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সরবরাহের  মজুতকে বাড়ানোর জন্য এবং বিদেশে আটকা পড়া লোকদের দেশে ফিরে আসার জন্য বিমান সংস্থাগুলির সাথে  সহযোগিতা এবং সহায়তা করার জন্য ব্যবসা এবং নির্মাতাদের একত্রিত করার জন্য একটি নতুন পরিকল্পনা ঘোষণা করছেন। তিনি বলেন কানাডা কখোনই এমন দুঃসময়ের মুখোমুখি হয়নি। কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে একে অপরের সহযোগিতায় এগিয়ে যেতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শুক্রবার ঘোষণা করেছেন যে অনিয়মিত অভিবাসীরা ( যারা এখনো কানাডার ইমিগ্রেন্ট হননি)  কানাডার সীমান্তে পৌঁছালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাবে। যারা বর্ডার ক্রস করতে চাচ্ছে তাদেরকে সহানুভূতির সাথেই ফিরিয়ে দেয়া হবে আমেরিকায়। দুই দেশের মধ্যে আলোচনা সাপেক্ষে বর্ডার সীল করার সিদ্ধান্ত কার্যকরী হবে আজ মাঝরাত থেকে। “কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একটি পারস্পরিক চুক্তি ঘোষণা করছে যে আমরা এখন অনিয়মিত অভিবাসীদের ফিরিয়ে দেব যারা কানাডা-মার্কিন সীমান্তে যে কোনও জায়গায় পার হওয়ার চেষ্টা করে,” ট্রুডো অটোয়ায় রিডাউ কটেজের বাইরে জাতির উদ্দ্যেশে প্রতিদিনের মতো আজও বক্তব্যে এসব ঘোষণা করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কানাডা কোভিড -১৯-এর বিস্তার ও প্রভাব মোকাবিলার জন্য পরবর্তী পদক্ষেপগুলি নিয়ে কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, আগামী দিনে আটকেপড়া কানাডিয়ানদের দেশে ফিরিয়ে আনতে আরও বেশি ফ্লাইটের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। প্রথম বিমানটি এই সপ্তাহান্তে মরক্কোতে আটকে থাকা কানাডিয়ানদের প্রত্যাবাসন করবে। করোনাভাইরাসকে কেন্দ্র করে  বোর্ডিং ক্রসিংয়ে স্ক্রিনিং করা হবে।  লোকদের চারপাশে সুরক্ষার উদ্বেগের মধ্যে এই পদক্ষেপটি এসেছে । যাদের ওয়ার্ককিং পারমিট কিংবা স্টুডেন্ট ভিসা রয়েছে তারা আসতে পারবেন তবে ১৪দিন অবশ্যই তাদেরকে কোয়ারান্টাইনে থাকতে হবে।

নতুন শিল্প ব্যবস্থা সম্পর্কে, ফেডারেল সরকার এবং শিল্প প্রতিনিধিদের মধ্যে কীভাবে ভেন্টিলেটর, মুখোশ এবং স্যানিটাইজারের মতো সরঞ্জাম আরও বেশী উত্পাদন করতে পারে তা ব্যবস্থা করা হচ্ছে। যদি কানাডায়  ভাইরাসের  প্রকোপ আরও খারাপ হয় এবং হাসপাতালগুলিকে অতিরিক্ত সরবরাহের প্রয়োজন হয় তা নিয়ে আলোচনা চলছে। জীবনরক্ষামূলক চিকিত্সা সরঞ্জাম উত্পাদন করতে পুনরায় সরঞ্জামের চাপকে “যুদ্ধের মতো প্রচেষ্টা” হিসাবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

COVID-19 লড়াইকে অগ্রাধিকার দেওয়ার জন্য করোনা ভাইরাসের কাজে ব্যবহৃত মাস্ক, গাউন, গ্লভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ প্রয়োজনীয় দ্রবাদি তড়িৎ গতিতে উৎপাদন এবং পরিবেশন করার জন্য ব্যবসায়িদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন এবং কানাডা সরকার এসব উত্পাদন ক্ষমতা বাড়ানো এবং সরবরাহের জন্য সবধরনের সহযোগিতা করছে। সংকট সময়ে  ব্যবসায়িরা অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন যা মাস্ক-গাউন-গ্লভস-হ্যান্ড সেটিটাইজার উৎপাদন করে মহামারীরোধে সহযোগিতা করছেন  বলে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

ট্রুডু জানিয়েছেন, সংকটময়সময়ে  জনসাধারণের প্রতিটি বিষয়গুলো  স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশী  অগ্রাধিকারভাবে দেখা হচ্ছে। তিনি বলেছেন যে, সরকারী আর্থিক সহায়তার জন্য এই সপ্তাহে সরকার পাঁচ লক্ষেরও বেশি আবেদন পেয়েছে এবং কর্মীরা এই অনুরোধগুলি দ্রুতগতিতে প্রক্রিয়া করার জন্য চব্বিশ ঘন্টা কাজ করছেন।

এই পরস্থিতিতে কানাডাকে জরুরি ঘোষণা করা হবে কি না সাংবাদিকের এ প্রশ্নের উত্তরে বলেন, এটা পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে। আমরা আমাদের সরকার প্রতিমুহূর্তে এনিয়ে বিশ্লেষন চলছে এবং প্রতিটিক্ষণে মনিটরিং চলছে, জনগণের স্বাস্থ্য এবং নাগরিকদের নিরাপত্তা প্রয়োজনে সব পদক্ষেপই গ্রহণ করা হবে।

ট্রুডোর বক্তব্যের  পরে মন্ত্রীরা এবং জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর  সময়ে সময়ে  আপডেট সরবরাহ করবেন, যা  আশা করা হচ্ছে অতিরিক্ত বিবরণ সরবরাহ করা হবে এবং ইতিমধ্যে ঘোষিত কয়েক বিলিয়নের সাহায্য কীভাবে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে সে সম্পর্কে নতুন তথ্য দেওয়া হবে।

 

উল্লেখ্য, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে কানাডায় ৮৯৫জন আক্রান্ত হয়েছেন ১১ জনের মৃত্যু এবং ১০ জন ভালো হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে ক্রমান্বয়ে সংক্রামিত হওয়াতে সবাই উদ্বিগ্ন- শঙ্কিত।  বেশ কয়েকটা প্রভিন্স ও শহরকে জরুরি ঘোষণা করা হয়েছে।

আশার কথাঃ

কানাডার প্করধান মন্রোত্নারী জাস্রটিন ট্রুডোর অনুরোধে অজানা মহামারীর এই সংকটময় সময়ে   কানাডার কোভিড-১৯ বিরোধি যুদ্ধকে সফল করতে ৫ হাজার ৮০০ ঔষধ ও চিকিৎসাসামগ্রী উৎপাদন কোম্পানি সরকারের পশে এসে দাঁড়িয়েছে। কানাডা সরকার ইতোমধ্যে ১ কোটি ১০ লক্ষ মাস্কের ব্যবস্থা করেছে যেগুলো শীঘ্রই জনসাধারণের নাগালে পৌঁছাবে। আসছে হাসপাতাল কর্মীদের জন্য এপ্রোন, গ্লভসসহ স্যানিটাইজার।



 

cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

seventeen − three =