কানাডার সংবাদ

করোনাভাইরাস নিয়ে  কানাডার সর্বশেষ খবর

করোনাভাইরাস নিয়ে  কানাডার সর্বশেষ খবর

বিদ্যুৎ ভৌমিক, সিবিএনএ নিউজ ডেস্ক, মন্ট্রিয়ল, কানাডা । ৬ এপ্রিল মঙ্গলবার কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো সামনের সারির বা frontline কর্মীদের স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন যে,  ফেডারেল সরকার কর্তৃক তাদের জন্য অসুস্থ হলে  ছুটির বেনিফিটের ব্যবস্হা করেছে এবং কানাডার প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন প্রদেশের প্রীমিয়ারদের তাদের ভ্যাকসিন রোলআউটগুলি দ্রুততর করতে আরও সাহায্যের প্রস্তাব দিয়ে বলেন যে,  কার কিভাবে কি  বিতরণ করা উচিত তা  নিয়ে বিতর্কের সময় এখন নয়।

দেশটিতে তৃতীয় ওয়েভে বড় আকারে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার সাথে সাথে তার মন্তব্য এসেছে এবং কয়েকটি প্রদেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগের গতি এবং গ্রহণ সম্পর্কেও প্রশ্ন উঠছে। জাস্টিন ট্রুডো আরও বলেন, প্রতি সপ্তাহে কানাডায় ক্রমবর্ধমান হারে আরও বেশি ভ্যাকসিন আসছে এবং এ পর্যন্ত প্রদেশগুলোতে  ১০  মিলিয়ন ভ্যাকসিন বন্টন করা হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে প্রচুর পরিমাণে, আইসিইউ বিছানা পূরণ হচ্ছে।  variant গুলো দ্রূত ছড়িয়ে পড়ছে, এমনকি যে সমস্ত লোকেরা নিজেরাই নিজেকে নিশ্চিত করেছেন যে তাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার দরকার নেই, তারা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। ট্রুডো  সংবাদ সম্মেলনে আারও বলেন যে তিনি বুধবার প্রদেশগুলোর প্রীমিয়ারদের সাথে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন।

এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক প্রেস কনফারেন্সে ক্যুইবেকের প্রিমিয়ার ফ্রান্সোয়া লেগু জরুরি জনস্বাস্থ্য বিধি পুনর্বহাল করার ঘোষণা দিয়ে বলেন, মন্ট্রিয়ল এবং ক্যুইবেকের অন্যান্য রেড জোনের মধ্যে তিন, চার এবং পাঁচ গ্রেডের  মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের  বিকল্প দিনে ক্লাসে যোগ দিতে ফিরে যাবেন এবং আগামী সোমবার থেকে এই পদক্ষেপ কার্যকর হবে। ক্যুইবেকের রেড জোনে  অপ্রয়োজনীয় ক্রিয়াকলাপগুলি আপাতত বাতিল করা হবে। এদিকে অন্টারিও প্রদেশে  করোনা সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়া বিশেষকরে তরুণদের মধ্যে সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ার কারণে  গত শনিবার ৩ এপ্রিল থেকে ৪ সপ্তাহের যে জরুরি জনস্বাস্থ্য বিধি নিষেধ অন্টারিও প্রদেশের জন্য  জারী করা হয়েছিল জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুসারে তা আরও কঠোর লকডাউন  বা Stay at Home lock down এর ঘোষনা করবেন আজ বুধবার অন্টারিও প্রিমিয়ার Doug Ford.

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, ৭ এপ্রিল বুধবার  দূপুর ১২টায়   এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিশ্বে ২১৯টি দেশ ও অঞ্চলে বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে মোট সনাক্তের সংখ্যা  বেড়ে ১৩ কোটি ৩৩ লাখ ৬২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। করোনাভাইরাসে বিশ্বে বর্তমানে মৃত্যু সংখ্যা দাড়িয়েছে ২৮ লাখ ৯১ হাজারের অধিক মানুষ। একই সাথে সুখবর হল এই যে, বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১০  কোটি ৭৫ লক্ষ ১৭ হাজারের অধিক মানুষ। আমরা মনে করি ক্যুইবেকের প্রিমিয়ার ফ্রান্সোয়া লেগু তার Political right wing Agendaর পরিবর্তে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুসারে জরুরি জনস্বাস্থ্য বিধি নিষেধ ক্যুইবেকে জনগণের বৃহওর স্বার্থের কথা বিবেচনা করে তা ক্যুইবেকে আরোপ করবেন।

৭ এপ্রিল বুধবার দূপুর ১২টায় CTV News এর COVID-19 Tracking থেকে নেওয়া খবরে কানাডায় এ পর্যন্ত বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা  বেড়ে  দাড়িয়েছে ১০ লক্ষ ২৫ হাজার ৩৭৮ জন। কোনভাবেই যেন বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসকে এবং এর নূতণ রুপে আসা Variant গুলোকে  নিয়ন্ত্রন করা যাচ্ছেনা। কানাডায় COVID-19 এর Active case রয়েছে বর্তমানে ৬১ হাজার ২৯৯ জন। কানাডায় এ পর্যন্ত  মৃতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ২৩ হাজার ১৬৬ জন  এবং এ পর্যন্ত ক্যানাডায় সুস্থ হয়েছেন ৯ লক্ষ ৪০ হাজারের অধিক মানুষ । পৃথিবীর ২য় বৃহওম দেশ কানাডায় রয়েছে ১০ টি প্রদেশ ও তিনটি টেরিটরী রয়েছে । কানাডায় করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত  আক্রানত রোগীর মধ্যে সনাক্ত ও মৃতের মধ্যে ৯০% বেশী রোগীই উল্লেখিত এ ৪টি বড় প্রদেশের  মধ্যে যথা ক্যুইবেক প্রদেশ, অন্টারিও প্রদেশ,  বৃটিশ কলম্বিয়ায় ও আলবার্টা  প্রদেশ। আজকের বুধবার এর খবরে কানাডায় নূতন শনাক্ত হয়েছে ৪৪৮৫ জন। ৭ এপ্রিলের খবরে কানাডার বৃহওম প্রদেশ ক্যুইবেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ৩ লক্ষ ১৯ হাজার ৮০২ জন এবং  এ পর্যন্ত ক্যুইবেকে মারা গেছেন  ১০ হাজার ৭০৯ জন। ক্যুইবেক প্রদেশে নূতন একদিনেই ১২৭০ জন নতুন কেভিড -১৯-এর নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।  লোক সংখ্যার দিক থেকে ক্যানাডার বৃহওম প্রদেশে  অন্টারিও প্রদেশে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৩ লক্ষ ৭০ হাজার ৮১৭ জন এবং অন্টারিও প্রদেশে  এ পর্যন্ত মারা গেছে  ৭ হাজার ৪৭৫ জন   । অন্টারিও প্রদেশের খবরে একদিনে  আক্রান্ত হয়েছে ৩২১৫ জন।  বৃটিশ কলম্বিয়া প্রদেশে  এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে  ১ লাখ ৫ হাজার ৯৮৮ জন এবং  বৃটিশ কলম্বিয়া  প্রদেশে  এ পর্যন্ত মারা গেছে ১ হাজার ৪৮৯ জন।   আলবার্টা প্রদেশে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে  ১ লাখ ৫৪ হাজার ১২৫ জন এবং  আলবার্টায় প্রদেশে  এ পর্যন্ত মারা গেছে  ২ হাজারের অধিক মানুষ।  হতাশার মধ্যেও আশার আলো এই যে. অনেক অনেক প্রতিক্ষার পর বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর ও নিরাপদভাবে  রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সক্ষম কার্যকরী  ফাইজার বাইঅনট্যাকের, মডারনা  ভ্যাকসিন  দেওয়া  শুরু হয়েছে কানাডার বিভিন্ন প্রদেশে গত ডিসেম্্বর থেকে। এ পর্যন্ত কানাডায় ৬.৭৩ মিলিয়ন ভ্যাকসিন কানাডায় মানবদেহে প্রয়োগ করা হয়েছে। Oxford and এসষ্ট্রোজেনেকা vaccine ও দেওয়া হচ্ছে। ২০২১ সাল বিশ্ব করোনামুক্ত হয়ে কানাডাসহ সারা বিশ্বে অর্থনৈতিক উন্নতির চাকা গতিশীল হবে এবং মানুষের জীবনে সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি ফিরে আসবে-এ প্রার্থনা ও প্রত্যাশা রইলো  সর্বান্তকরণে।

সূত্র : CTV  নিউজ, কানাডা  ৭ এপ্রিল ২০২১ (করোনাভাইরাস নিয়ে  কানাডার সর্বশেষ খবর )


সর্বশেষ সংবাদ

দেশ-বিদেশের টাটকা খবর আর অন্যান্য সংবাদপত্র পড়তে হলে CBNA24.com

সুন্দর সুন্দর ভিডিও দেখতে হলে প্লিজ আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আমাদের ফেসবুক পেজ   https://www.facebook.com/deshdiganta.cbna24 লাইক দিন এবং অভিমত জানান

 

আপনার মন্তব্য লিখুন