প্রবাসের সংবাদ

বিলেতে কমলগঞ্জের শত জন

বিলেতে কমলগঞ্জের শত জন

ডাক্তার মোহাম্মদ মামুন উর রশীদ : খাঁটি দেশ প্রেমিক ও মানব হিতৈষী একজন পেশাদার চিকিৎসক

বিলেতে কমলগঞ্জের শত জন-এর একজন ডাক্তার মোহাম্মদ মামুন উর রশীদ এর জন্ম ১০জুলাই ১৯৭৪ মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলাধীন আদম পুরের উত্তর ভাগ গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত ও উচ্চ শিক্ষিত মুসলিম পরিবারে। তাঁর পিতার নাম মোহাম্মদ খতিব মিয়া যিনি এলাকায় একজন সৎ ব্যবসায়ী ,ধার্মিক ও পরোপকারী মানুষ হিসাবে পরিচিত।

খতিব মিয়া সাহেবের ৬ভাই ও দুই বোনের মধ্যে ছোট ভাই অর্থাৎ ডাক্তার মোহাম্মদ মামুন উর রশীদের ছোট চাচা গৌছ আলী সাহেব এগ্রিকালচারে পি এইচ ডি ডিগ্রীধারী। ডক্টর গৌছ আলী সাহেব একমাত্র মৌলভীবাজারী ব্যক্তি যিনি বাংলাদেশ রাইস রিসার্চ ইনিস্টিউট (BRRI) এর চিফ সাইন্টিফিক অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন।

ডাক্তার মামুন ৬ ভাই ও ৩ বোনের মধ্যে চতুর্থ। তাঁর বড় ভাই নাজিম উদ্দিন সিলেট শাহ জালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক ডিপার্টমেন্টের সহকারী প্রকৌশলী হিসাবে কর্মরত।

অত্যন্ত মেধাবী ও প্রজ্ঞা সম্পন্ন জনাব মোহাম্মদ মামুন উর রশীদ স্কুল জীবনের প্রতিটি পরীক্ষায় প্রথম অথবা দ্বিতীয় স্থান লাভ করেন। তিনি কমলগঞ্জের এম এ ওহাব হাই স্কুল থেকে গণিত ও বিজ্ঞানে লেটার মার্ক সহ ১৯৮৯সালে এস এস সি পাশ করেন। ১৯৯১ সালে সিলেট এম সি কলেজ থেকে জনাব রশীদ গণিত ,পদার্থ ,রসায়ন ও জীববিজ্ঞানে মোট চারটি লেটার মার্কসহ কর্তৃত্বের সাথে এইচ এস সি পাশ করেন।
প্রখর মেধা ও একাডেমিক রেজাল্ট জনাব রশীদকে চিকিৎসাবিজ্ঞান পড়তে অনুপ্রাণিত করে। তিনি প্রথমে বরিশাল মেডিকেল কলেজ ও পরে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজে লেখাপড়া করেন। ১৯৯৯সালে জনাব রশীদ এম বি বি এস পাশ করেন আর ২০০০সালে তাঁর ইন্টার্নী কোর্স সম্পন্ন হয়।
শিক্ষা সম্পন্ন হওয়ার পর জনাব রশীদ সিলেটস্থ নর্থ ইষ্ট মেডিকেল কলেজে শিক্ষকতায় যোগ দেন।

আরও পড়ুনঃ তুরস্কে সাগরে ট্রলারডুবি: ছাতকের ২ তরুণের মৃত্যু

২০০২সালে পাড়ি দেন ইংল্যান্ডে। একজন নন ইউকে ডাক্তার হিসাবে প্রথমেই ইংল্যান্ডে তিনি ইংরেজী ভাষার দক্ষতা তথা PLAB পরীক্ষায় অংশ নেন। তাঁর এই পরীক্ষার রিজাল্ট খুবই ভালো হয় এবং ২০০৫ সালের মধ্যেই তিনি আনুষাঙ্গিক সকল পরীক্ষায় উর্ত্তীন হন এবং লন্ডনের সেন্ট জর্জ হসপিটালে কাজ শুরু করেন।
ইতিমধ্যেই জনাব রশীদ ইংল্যান্ডের বিভিন্ন হসপিটাল থেকে Paediatrics, Emergency medicine, Psychiatry, Geriatric medicine, General Practice এর উপর বিশেষ ট্রেনিং গ্রহণ করেছেন।
তিনি MRCGP (I), MRCEM (I) নামে দুটি পোষ্ট গ্রজুয়েশন কোর্স সম্পন্ন করে এখন ইমার্জেন্সি মেডিসিন এর উপর ফেলোশিপ FRCEM করার চেষ্টায় আছেন।

জনাব মামুন উর রশীদ বর্তমানে ব্রিটিশ ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস অধিভুক্ত মিডলসেক্স ইউনিভার্সিটি হসপিটালে ইমার্জেন্সি বিভাগে সিনিয়র রেজিষ্টার হিসাবে কর্মরত।

কমলগঞ্জে জন্ম নেওয়া ও কমলগঞ্জে বেড়ে উঠা জনাব রশীদ প্রথম ও একমাত্র ব্যক্তি যিনি ব্রিটিশ ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের চিকিৎসক। বাংলাদেশী বংশদ্ভুত হাতে গোনা কিছু ব্রিটিশ চিকিৎসকদের মধ্যে তিনি একজন।
অত্যন্ত ধার্মিক ,বিনয়ী ও প্রচার বিমুখ জনাব ডাক্তার মামুন উর রশীদ পেশাগত কাজের পাশাপাশি তিনি সামাজিক কর্মকান্ডের সাথেও সম্পৃক্ত। লন্ডনস্থ নিউবারি পার্ক এলাকায় নতুন করে প্রতিষ্ঠিত মসজিদের তিনি একজন দাতা সদস্য। নিউবারি পার্ক মসজিদ,কালচার এন্ড ইসলামিক সেন্টারের সাথে তিনি অতপ্রোত ভাবে জড়িত।

আরও পড়ুনঃ মৌলভীবাজারের উপ পরিচালক-কে বিদায় সংবর্ধনা

সদ্য হজ্জ্ব করে আসা ডাক্তার মামুন উর রশীদ আগামীতে ইউকে থেকে হজ্জ্বে যাওয়া হাজীদের জন্য ফ্রি স্বাস্থ্য সেবামূলক কর্মশালা করার চিন্তা ভাবনা করছেন।
দেশে হত দরিদ্র তাঁর এলাকাবাসীর জন্য তিনি একটি স্থায়ী ট্রিটমেন্ট সেন্টার করার উদ্যোগ নিয়েছেন যাতে আধুনিক অন লাইন ভিত্তিক ভিডিও কন্সালটেশনের মাধ্যমে ব্রিটেনে বসেই রোগীদের উপযুক্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যায়।
দেশ প্রেমিক এই তরুণ চিকিৎসক দেশের কষ্টে ব্যথিত হন আবার দেশের আনন্দে হন সমান অংশীদার।
বিলেতে কমলগঞ্জের শত জন-এর  একজন পেশাদার ব্রিটিশ চিকিৎসক হওয়া সত্ত্বেও দেশের প্রতি তাঁর এই মায়া ও মমতা আমাদের বিমোহিতই করে না বিস্মিতও করে বটে।

সৈয়দ মাসুমঃ  কবি, লেখক, যুক্তরাজ্য

কানাডা প্রবাসীদের অনুষ্ঠানের ভিডিও দেখতে হলে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানে

cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

thirteen − 7 =