বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী

বঙ্গবন্ধুর নতুন বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’

বঙ্গবন্ধুর নতুন বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’
‘আমার দেখা নয়াচীন’-এর মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী। ছবি: ফোকাস বাংলা

বঙ্গবন্ধুর নতুন বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’ !! বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নতুন বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’-এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। এটি তার লেখা তৃতীয় স্মৃতিকথামূলক গ্রন্থ।

রোববার বিকালে অমর একুশে বইমেলা-২০২০ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বইয়ের মোড়ক উন্মোচন শেষে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ১৯৫২ সালে তরুণ রাজনৈতিক নেতা হিসেবে পাকিস্তান প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে পিকিংয়ে শান্তি সম্মেলনে যোগদান করেন। এরপর ১৯৫৪ সালে কারাগারে থাকাকালীন স্মৃতিনির্ভর নয়াচীন কাহিনি লেখেন তিনি। বইটিতে অসাম্প্রদায়িক ভাবাদর্শ, নিজ দেশকে গড়ার সংগ্রামী প্রত্যয় ফুটে উঠেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কারাগারে খাতা সেন্সর করে দেওয়া হতো। সেই সেন্সরের সিল থেকে আমরা জানতে পারি এটি ১৯৫৪ সালে লেখা। মলাটটি অনেকটা চীনা অক্ষরের মতো করে লেখা ছিল এবং মনোগ্রামটি পিকাসোর তৈরি করা।’

তিনি বলেন, ‌‘চীনে শান্তি সম্মলনে কীভাবে গিয়েছেন এবং তার পথ সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা আছে বইটিতে। বিশেষভাবে লক্ষণীয়, এই বইতেই লেখা আছে- চীনে শান্তি সম্মেলনে বাংলা ভাষায় বক্তৃতা দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু।’

বঙ্গবন্ধুর নতুন বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’ সেই সময়ে চীনের অবস্থা কেমন ছিল বইতে সে বিষয়ে সবকিছুর উল্লেখ আছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু সেই সময়ে চীনের বিষয়ে যে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন আজ বর্তমান চীনের অর্থনৈতিক অবস্থা ঠিক সেভাবেই পরিবর্তন হয়েছে। চীনকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিশ্লেষণ ছিল একদম নিখুঁত। এ সবকিছুই উল্লেখ আছে নতুন বইটিতে।

বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সঞ্চালক রামেন্দু মজুমদার বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে ইতোমধ্যে জাতি হাতে পেয়েছে বঙ্গবন্ধুর লেখা দু’টি বই ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘কারাগারের রোজনামচা’। আর ‘আমার দেখা নয়াচীন’ তার তৃতীয় স্মৃতিকথামূলক গ্রন্থ। বঙ্গবন্ধুকে লেখালেখিতে সবসময় উদ্বুদ্ধ করেছেন বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব।’

সংবাদটি শেয়ার করুন
cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

five × four =