বিশ্ব

করোনায় চীনে বিয়েবিচ্ছেদ বেড়েছে!

বিয়েবিচ্ছেদ

করোনায় চীনে বিয়েবিচ্ছেদ বেড়েছে!

চীনে হঠাৎ করেই বিয়েবিচ্ছেদের (ডিভোর্স) হার অনেক বেড়ে গেছে। এর পেছনেও নাকি দায়ী করোনাভাইরাস! এই সম্পর্ক ভাঙার পেছনে করোনায় সংক্রমণের ভয় নয়, বরং একটানা বেশি সময় একসঙ্গে ঘরে থাকা, আইসোলেশন বা কোয়ারেন্টাইনে থাকার কারণেই এই বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটছে।

এত দিন যে ধারণা ছিল, চোখের আড়াল হলে মনের আড়াল ঘটে, কাছাকাছি থাকলে সম্পর্ক গভীর হয়, সেই ধারণা ‘ভুল’ প্রমাণ হতে চলেছে চীনের বর্তমান বাস্তবতায়। ‘নৈকট্য’ই যেন এখন হয়ে দাঁড়িয়েছে দাম্পত্যে চরম অশান্তির কারণ! করোনা আতঙ্কে সারা দিন বাড়িতে থাকছে মানুষ। আবার কারো করোনা লক্ষণ দেখা দিলে একটানা ১৪ দিন ঘরে আইসোলেশন বা কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক। এর ফলে সারা দিন ঘরে থাকতে থাকতে সামান্য তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়া হচ্ছে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে। সেই অশান্তির আগুন ঘরের চৌহদ্দি ছাড়িয়ে আদালত পর্যন্ত গড়াচ্ছে। যা শেষ পর্যন্ত রূপ নিচ্ছে বিয়েবিচ্ছেদে।

চীনের বিয়ে নিবন্ধন অফিসের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ মার্চের মধ্যে শুধু একটি রেজিস্ট্রি অফিসেই ৩০০টি বিয়েবিচ্ছেদ রেকর্ড করা হয়েছে। অন্য একটি রেজিস্ট্রি অফিসে একদিনে ১৪টি ডিভোর্সের মামলা ফাইল হয়েছে। তরুণ প্রজন্মের মধ্যে এই বিয়েবিচ্ছেদের হার সবচেয়ে বেশি।

শিনচুয়ান প্রদেশের বিয়ে নিবন্ধন পরিচালক লু শিজন বলছেন, যুগলরা দিনের অনেকটা সময় একসঙ্গে কাটানোয় খুঁটিনাটি নানা কারণে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হচ্ছে। যার জেরে সম্পর্ক এমনই তিক্ততায় পৌঁছাচ্ছে, সম্পর্ক ভেঙে তারা বেরিয়ে যেতে চাইছেন।

গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম শনাক্ত হওয়া এই করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) এখন বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করেছে।

সূত্র : দ্য স্টার।

 


 

 

 

cbna24-7th-anniversary
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

five + 14 =